যারা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে পদানত করেছে তাদের বিচার হতে হবে : শাহীন রেজা নূর

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : শহীদ বুদ্ধিজীবী সাংবাদিক সিরাজউদ্দিন হোসেনের সন্তান ও দৈনিক ইত্তেফাকের নির্বাহী সম্পাদক শাহীন রেজা নূর বলেছেন, বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার পর দীর্ঘ একুশ বছর বাংলাদেশ অন্ধকারের কালো অধ্যায়ে নিক্ষিপ্ত হয়েছিল। ইতিহাসের উল্টোযাত্রায় একে একে মুক্তিযুদ্ধের অর্জণগুলো মুছে ফেলা হয়েছিল। একাত্তরের ঘাতক ও যুদ্ধাপরাধীদের রাজনীতিতে পুনবার্সন করে দেশকে যারা পাকিস্তানী ভাবধারায় দেশকে পরিচালিত করেছিল তারা মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তি ও সরকারের বিরুদ্ধে নানান ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তাদেরকে বিচারের মুখোমুখি করা না হলে এ জাতির ভবিষ্যত নিরাপদ নয়।

তিনি আজ বিকেলে বঙ্গবন্ধুর ঘনিষ্ট রাজনৈতিক সহচর ও সাবেক মন্ত্রী মরহুম জহুর আহমদ চৌধুরীর জৈষ্ঠ্য সন্তান ষাট দশকের তুখোড় ছাত্রনেতা ও একাত্তরের প্রতিরোধে যোদ্ধা শহীদ সাইফুউদ্দিন খালেদ চৌধুরীর ৪৭ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলার উদ্যোগে জেলা শিশু একাডেমি প্রাঙ্গনে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভার প্রধান অতিথির ভাষণে একথা বলেন।

তিনি আরো বলেন, বাঙালি বিস্তৃতিশীল জাতি। খুব সহজেই গর্বিত ইতিহসা ও ঐতিহ্যকে ভুলে যায়। এ কারণে আমরা আজ বিপন্ন ও পরজীবী। আমরা আজ পথহারা। আমাদের অবশ্যই ইতিহাসের সঠিক পথ খুঁজে পেতে হবে। মুখ্য আলোচকের ভাষণে বাংলা একাডেমীর উপ পরিচালক ও বঙ্গবন্ধু আবৃত্তি পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ড. শাহাদাত হোসেন নিপু বলেন, আজকের প্রজন্মকে উদ্দেশ্য প্রণোদিতভাবে বিপথগামী করা হয়েছে। আজ তাদেরকে বিষবৃক্ষে পরিণত করা হয়েছে। এদের পৃথিবী অন্ধকারময়। এদের উদ্ধারের জন্য আরেকটি মুক্তিযুদ্ধের সূচনা করতে হবে।

বিশেষ অতিথির ভাষণে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি নঈম উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন শহীদ সাইফুদ্দীন খালেদ চৌধুরী আমাদের মহান মুক্তিযুদ্ধে প্রথম কাতারের জীবন উৎসর্গকারী সূর্য সন্তান। তাঁর মত একজন মেধাবী ছাত্রনেতা বিস্মৃতির অতলে হারিয়ে গেলে মহান মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসের উজ্জ্বল স্মৃতিসত্তা লোপ পাবে। যা আমাদের সকলের জন্য দুর্ভাগ্যজনক হবে। শহীদ সাইফুদ্দিন খালেদ চৌধুরীর সহযোদ্ধা আলহাজ্ব শফর আলী বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের শুরুতেই তিনিসহ ৫ জন সহযোদ্ধা প্রাণ দিয়ে অমরত্ব লাভ করেছেন। কিন্তু আমরা তাদের প্রাপ্য মর্যাদা দিতে পারিনি। এই অপ্রিয় সত্যকে উপলব্ধি করে আমাদের ব্যর্থতাকে ঢাকতে হবে। সভাপতির ভাষণে শহীদ সাইফুদ্দীন খালেদ চৌধুরীর সহোদর ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন, শহীদ পরিবারের সদস্য হিসেবে আমাদের অনেক না পাওয়ার বেদনা আছে। কিন্তু স্বান্তনা খুঁজে বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে উর্দ্ধে তুলে ধরে রেখেছেন।বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম জেলার সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলমের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত স্মরণসভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন স্মরণসভা উপ পরিষদের যুগ্ম সদস্য সচিব ইয়াসির আরাফাত। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম জেলা ইউনিট কমান্ডার মোহাম্মদ সাহাব উদ্দিন, নগর আওয়ামী লীগের উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্য শেখ মাহমুদ ইছহাক, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন প্যানেল মেয়র প্রফেসর নিছার উদ্দিন আহমেদ মঞ্জু, নগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য প্রকৌশলী বিজয় কুমার চৌধুরী কিষাণ, ইতিহাসবিদ ও সাংবাদিক মো: শামসুল হক, আওয়ামী লীগ নেতা দীপঙ্কর চৌধুরী কাজল, বঙ্গবন্ধু গবেষণা কেন্দ্রের সিনিয়র সহ সভাপতি আ ফ ম মোদাচ্ছের আলী, বঙ্গবন্ধু ও জাতীয় চার নেতা স্মৃতি পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মো: আবদুর রহিম প্রমুখ। শহীদ সাইফুদ্দিন খালেদ চৌধুরীর স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে আবৃত্তি পরিবেশন করেন বঙ্গবন্ধু আবৃত্তি পরিষদের সভাপতি আবৃত্তিশিল্পী অঞ্চল চৌধুরী, কবি নিশাত হাসিনা শিরীন, তারুণ্যের উচ্ছাসের সভাপতি মুজাহিদুল ইসলাম। স্মরণসভার আরো উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগ নেতা মুশতাকিন বিল্লাহ, আবদুল মালেক, জাতীয় মহিলা শ্রমিক লীগ চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি নাসরিন আক্তার নাহিদা, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সহ সম্পাদক ফয়সাল বাপ্পী, সংস্কৃতিকর্মী কবি সজল দাশ, শ্রাবণী দে, দেবু বড়–য়া, মোস্তফা কামাল, কামাল উদ্দিন, অনিন্দ্য দেব, আজিজুল করিম, রহমত উল্লাহ রিফাত, মো: মাসুদ, ইমদাদুর রহমান রিয়াদ, আসাদুজ্জামান রিপন, মো: ইমরান, সৃজন সিকদার, অহিদুল কাদের, রিমন দত্ত, সাইফুল ইসলাম, কৌশিক মজুমদার, সাইমন খান, সিহাব উদ্দিন সামির প্রমুখ।
আলোচনা শেষে শহীদ সাইফুদ্দিন খালেদ চৌধুরীর স্মরণে অনুষ্ঠিত শিশু কিশোর চিত্রাংকন প্রতিযোগিতার বিজয়ী ও অংশগ্রহণকারী প্রায় শতাধিক ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে সনদপত্র ও জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে নিবেদিত করে খ্যাতিমান লেখকদের গ্রন্থ প্রতিযোগিদের হাতে তুলে দেন প্রধান অতিথি শাহীন রেজা নূর ও বিশেষ অতিথিবৃন্দ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: