নওয়াজের বিরুদ্ধে দুর্নীতির প্রমাণ মেলেনি, তদন্তের নির্দেশ

বিশ্বময় ডেস্ক: পানামা পেপার্স কেলেংকারির ঘটনায় পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফকে অপসারণ করার মতো পর্যাপ্ত প্রমাণ পায়নি দেশটির সুপ্রিম কোর্ট।

এ কারণে এখনই তাকে অপসারণের সিদ্ধান্ত না দিয়ে তিনি ও তার সন্তানদের দুর্নীতির অভিযোগ তদন্ত করতে যৌথ তদন্ত কমিশন গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

আদেশে ৬০ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।

দুর্নীতির জন্য অভিযুক্তরা হলেন- প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ, তার কন্যা মরিয়ম নওয়াজ, ছেলে হাসান নওয়াজ ও হুসাই নওয়াজ, মরিয়মের স্বামী ক্যাপ্টেন (অব.) মুহাম্মদ সফদার এবং অর্থমন্ত্রী ইসহাক দার।

বৃহস্পতিবার পাকিস্তান পানামা পেপার্স কেলেংকারি মামলায় দেয়া এক বিভক্ত রায়ে তাদের বিরুদ্ধে তদন্তের নির্দেশ দেন সুপ্রিম কোর্ট।

সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ ৩-২ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে ৫৪০ পৃষ্ঠার এ রায় দেয়া হয়।

বেঞ্চের বিচারপতিরা হলেন- বিচারপতি আসিফ সাঈদ খোসা, বিচারপতি গুলজার আহমেদ, বিচারপতি এজাজ আফজাল খান, বিচারপতি আজমত সাঈদ এবং বিচারপতি ইজাজুল আহসান।

এর মধ্যে বিচারপতি খোসা ও গুলজার রায়ে ভিন্নমত দেন।

২০১৬ সালের ৩ এপ্রিল ইন্টারন্যাশনাল কনসোর্টিয়াম অব জার্নালিস্টস পানামা পেপার্স ফাঁস করে। এতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের রাজনীতিক, ধনকুবের ও সুপার স্টারদের কর ফাঁকির প্রমাণ বের হয়ে আসে।

পানামা পেপার্সে নওয়াজ পরিবারেরও কর ফাঁকির বিষয়টি ওঠে আসে।

এ ঘটনার বিচার দাবি করে সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করে পাকিস্তান তেহরিকে ইনসাফ, জামায়াতে ইসলামী, ওয়াতান পার্টি এবং অল পাকিস্তান মুসলিম লীগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: