সকল ধর্মই মানব কল্যাণের কথা বলে : পটিয়ায় আন্ত:ধর্মীয় সম্মেলনে বক্তারা

সনজয় সেন, পটিয়া সংবাদদাতা : সকল ধর্মই মানব কল্যাণের কথা বলে এবং কোন ধর্মে বলা হয়নি ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করার কথা । প্রত্যেক মানুষের কর্তব্য নিজের ধর্ম ঠিক রেখেই অন্য ধর্মকে সম্মান করা । ধর্ম মানুষকে সঠিক পথ চলার নিদের্শনা দেয় এখানে ধর্মের মধ্যে কোন ধরনের বিভেদ হানাহানি উল্লেখ করা হয়নি। আমরা সবাই মানুষ হয়ে বাচঁতে চায়। সকল ধর্মের অনুসরন জাতিকে উন্নত করে বলে দাবী করেছেন পটিয়ায় আন্ত:ধর্মীয় সম্মেলনের বক্তারা।

বৃহস্পতিবার দুপুরে অনুষ্ঠিত শ্রী শ্রীমৎ স্বামী সত্যানন্দ মহারাজ ও স্বামী মঙ্গল দাস মোহন্ত (কালা বাবা) স্বরণে ১০৫তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে দেশ জাতি ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে মহামিলন মেলা ও আন্ত:ধর্মীয় মহাসম্মেলন ও মহাউৎসবের অতিথিরা উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

উক্ত ধর্ম সম্মেলনের উদ্বোধক ছিলেন ফটিকছড়ি মাইজভান্ডার দরবার শরীফের সাজ্জাদানশীল মাওলানা সৈয়দ মফিজ উদ্দিন আল হাছানি। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি থাকার কথা ছিল বাংলাদেশ সরকারের তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর। যদিও তিনি অসুস্থ থাকার কারনে উপস্থিত হতে পারেনি। পরে মন্ত্রীর পাঠানো তার এক লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন প্রধান অতিথি বাংলাদেশ সরকারের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তরের প্রধান রাসায়নিক পরীক্ষক দুলাল কৃষ্ণ সাহা, প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি জয়ন্ত সেন দিপু, বিশেষ অতিথি ছিলেন ইন্টার রিলিজিয়ন হারমনি সোসাইটির মহাসচিব মনোরঞ্জন ঘোষাল, বাংলাদেশ হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রীস্টান কল্যাণ ফ্রন্ট সদস্য সচিব নকুল চন্দ সাহা, বাংলাদেশ জাতীয় সংস্কৃতিও পালি প্রাচ্যবিদ্যা প্রচার পরিষদ কেন্দ্রীয় কমিটির চেয়ারম্যান অধ্যাক্ষ মিলন দেবনাথ, হযরত ছুফী ছৈয়দ জাফর সাদেক শাহ, পটিয়া কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ বিহারের অধ্যাক্ষ ড.সংঘপ্রিয় মহাথেরো,লক্ষিপুর সার্চ প্রিস্ট ইনচার্জ ফাদার রবাট গনছালভেজ, গুরুদুয়ারা শিখ টেম্পল চট্টগ্রামের গ্রন্থি ভাই সিংবীর সিং,বাহাই সেন্টার চট্টগ্রামের মি.সাঈদ হাকিকি, সূফীতত্ব গবেশণা ও মানবকল্যাণ কেন্দ্রের সাধারন সম্পাদক হাকিম মওলানা ইকবাল ইউসুফ, আনোয়ারার সাবেক চেয়ারম্যান নবী হোসেন, হাইদগাঁও ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মো: ইউনুচ মিয়া, কেলিশহর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সরোজ সেন নান্টু, মিরশ্বরাই খৈয়াছড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জাহেদ ইকবাল চৌধুরী, মিরশ্বরাই জোরারগঞ্জ ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মকসুদ আহম্মদ চৌধুরী, ঢাকা শনির আখড়া সমাজসেবক মো: আজম মৃধা, চট্টগ্রাম জর্জ কোর্ট সরকারী আইন কর্মকর্তা এডভোকেট শিকতোষ দাশ, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্র-যুব ঐক্য পরিষদ নেতা সদীপ দেবনাথ সজীব,পিংকু দেবনাথ প্রমুখ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: