’দেশে সরকার নেই, দায়বদ্ধতাও নেই’-হাওর কর্মকর্তাদের সমালোচনায় ফখরুল

ডেস্ক:  অকাল বন্যার কারণে হাওর অঞ্চলে দুর্যোগ নেমে আসার পরেও হাওর অধিদফতরের কর্মকর্তাদের বিদেশ সফরে থাকার তীব্র সমালোচনা করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তিনি বলেন, ‘আমাদের হাওর অঞ্চলে এতো বড় একটা দুর্যোগ উপস্থিত হয়েছে, সেসময়ে হাওর অধিদফতরের কর্মকর্তারা যদি বিদেশে যান, তাহলে বুঝতে হবে যে, দেশে সরকার নেই, দায়বদ্ধতাও নেই।’

বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপির আইন বিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়াকে দেখতে গিয়ে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘সরকার কীভাবে দেশ চালাচ্ছে- হাওর কর্মকর্তাদের বিদেশ সফর তা প্রমাণ করে। এখানে যে কোনো সুশাসন ও জবাবদিহিতা নেই তা বোঝা যায়।’

আগামী রোববার সুনামগঞ্জের হাওরের দুর্গত অঞ্চলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফরের বিষয়ে বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘আমরা মনে করি, প্রধানমন্ত্রীর অনেক আগেই দুর্গত এলাকায় যাওয়া উচিৎ ছিল।’

আগামী ১মে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে জনসভার জন্য জাতীয়তাবাদী শ্রমিক দল অনুমতি চাইলেও ঢাকা মহানগর পুলিশ তা দেয়নি বলে জানান ফখরুল।

এ অবস্থায় পুলিশের পরামর্শে ২/৩ মে জনসভা করার জন্য নতুন করে আবেদন করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

এ বিষয়ে ফখরুল বলেন, এই মুহূর্তে কোনো কনফোনট্রেশনে আমরা যাওয়ার চিন্তা করছি না। সরকারের চিরাচরিত নীতি বিরোধী দলকে কোনো সভা-সমাবেশ করতে দেবে না- এটা তারই বহিঃপ্রকাশ।

তিনি আরও বলেন, এ থেকে বোঝা যায় যে, গণতন্ত্রের অবস্থাটা এখন কোন জায়গায় আছে। গণতন্ত্র যে নেই বাংলাদেশে- এটা তারই প্রমাণ।

অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া ডায়াবেটিকস ও উচ্চ রক্তচাপে আক্রান্ত হয়ে বারডেম হাসপাতালে ভর্তি আছেন। দুপরে মির্জা ফখরুল অসুস্থ সানাউল্লাহকে দেখতে যান। চিকিৎসকদের কাছ থেকে তার চিকিৎসার খোঁজ-খবর নেন।

এ সময়ে দলের ভাইস চেয়ারম্যান অধ্যাপক এজেডএম জাহিদ হোসেন, জাসাস নেতা নুরুউদ্দিন আহমেদ নুরু, স্বেচ্ছাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল কাদের ভুঁইয়া জুয়েল, অধ্যাপক আমিনুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: