গাজীপুরে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে বাবা-মেয়ের আত্মহত্যা : ৩ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন

মুহাম্মদ আতিকুর রহমান (আতিক),গাজীপুর জেলা প্রতিনিধি: গাজীপুরের শ্রীপুরে বিচার না পেয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে বাবা-মেয়ের আত্মহত্যার ঘটনায় পুলিশের দায়িত্বে কোনো অবহেলা আছে কি না, তা জানতে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

১ মে সোমবার রাতে গাজীপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম সবুরকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

কমিটির অপর সদস্যরা হলেন শ্রীপুর সার্কেলের এএসপি মোঃ শাহেদুল ইসলাম ও পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের বিশেষ শাখার পরিদর্শক মমিনুল ইসলাম।

তদন্ত কমিটির সদস্য পরিদর্শক মমিনুল ইসলাম জানান, ওই ঘটনায় শ্রীপুর থানা পুলিশের দায়িত্বে কোনো অবহেলা আছে কি না তা জানতে গাজীপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন রশিদ সোমবার রাতে তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছেন। কমিটিকে তিন কার্যদিবসের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে বলা হয়েছে।

গত ২৯ এপ্রিল শনিবার সকালে শ্রীপুর রেলওয়ে স্টেশন এলাকায় শ্রীপুরের সিটপাড়া গ্রামে দিনমজুর হজরত আলী (৪৫)ও তার পালিত কন্যা আয়েশা আক্তার (৮) ট্রেনের নিচে লাফ দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন।

হজরত আলীর স্ত্রী হালিমা বেগমের অভিযোগ, তার মেয়েকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে স্থানীয় বখাটে ফারুক। এলাকার মানুষ টের পেয়ে ওই মেয়েকে রক্ষা করে। এ ঘটনা স্থানীয় ইউপি সদস্য ও থানা পুলিশকে জানিয়ে প্রতিকার না পেয়ে মেয়েকে নিয়ে ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা করেন হজরত আলী।

এ অভিযোগে স্থানীয় ইউপি সদস্য আবুল হোসেনকে গ্রেফতার করে পুলিশ। পরে এ ঘটনায় হালিমা বেগম আবুল হোসেনসহ সাতজনের বিরুদ্ধে কমলাপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। সোমবার আবুল হোসেনকে দুই দিনের রিমান্ডে নিয়েছে রেলপুলিশ।

এদিকে সোমবার জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান কাজী রিয়াজুল হক ও কমিশনের কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। এ সময় তারা স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে এবং নিহত হজরত আলীর স্ত্রী হালিমা বেগমের সঙ্গে কথা বলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: