এসএসসি-সমমানে পাসের হার ৮০.৩৫ শতাংশ, এবার কমেছে পাসের হার

ডেস্ক: ১০ শিক্ষা বোর্ডে এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় গড় পাসের হার ৮০ দশমিক ৩৫ শতাংশ।

আজ বুধবার সকালে গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেয়া হয়। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের নেতৃত্বে শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যানরা এই অনুলিপি তুলে দেন। সেখানে শিক্ষামন্ত্রী ফলাফলের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, অন্যান্য বারের চেয়ে এবারে পাসের হার কম।

ফলাফলের অনুলিপি হস্তান্তরের সময় শিক্ষামন্ত্রী জানান, চট্টগ্রাম বোর্ডে পাসের হার ৮৩.৯৯ শতাংশ, কুমিল্লা বোর্ডে পাসের হার ৫৯.০৩ শতাংশ, দিনাজপুরে ৮৩.৯৮ শতাংশ, সিলেট ৮০.২৬ শতাংশ, বরিশাল ৭৭.২৪ শতাংশ, যশোর বোর্ডে ৮০ দশমিক ০৪ শতাংশ।

এ ছাড়া কারিগরি শিক্ষাবোর্ডে পাসের হার ৭৮.৬৯ ও মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডে পাসের হার ৭৬.২০ শতাংশ।

এবারের অংশ নেয়া পরীক্ষার্থীদের মধ্যে পাস করেছেন ১৪ লাখ ৩১ হাজার ৭২২ জন। মোট জিপিএ-৫ পেয়েছেন ১ লাখ ৪ হাজার ৭৬১ জন।

গতবছরের চেয়ে এবারে পাসের হার কমেছে ৭.৯৪ শতাংশ।

দুপুর ২টা থেকে শিক্ষার্থীরা স্ব স্ব বোর্ডের ওয়েবসাইট, মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে ও নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে ফল জানতে পারবেন।

এ বছরের এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয় ২ ফেব্রুয়ারি, শেষ হয় ২ মার্চ। পরীক্ষা শেষ হওয়ার ৬০ দিনের মধ্যে কয়েক বছর ধরে এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করে আসছে শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তারই ধারাবাহিকতায় এবারও ৬০ দিনের মধ্যে ফল প্রকাশিত হচ্ছে।

২৮ হাজার ৩৪৪টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ১৭ লাখ ৮৬ হাজার ৬১৩ শিক্ষার্থী এবারের এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নেয়।

যেভাবে জানা যাবে ফল
শিক্ষার্থীরা দুপুর ২টা থেকে ইন্টারনেট, মোবাইল এসএমএস ও নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান থেকে ফলাফল জানতে পারবে।

যেকোনো মোবাইল অপারেটর থেকে এসএমএস করে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল জানা যাবে। SSC/DAKHIL লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে (যেমন, ঢাকা হলে DHA) স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৭ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠালে ফিরতি এসএমএসে ফল জানা যাবে।

শিক্ষা বোর্ডগুলোর ওয়েবসাইট www.educationboardresults.gov.bd থেকেও পরীক্ষার্থীরা ফল জানতে পারবেন। শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো www.educationboardresults.gov.bd ওয়েবসাইটে গিয়ে ফলাফল ডাউনলোড করতে পারবে। বোর্ড থেকে ফলাফলের কোনো হার্ডকপি সরবারহ করা হবে না। তবে বিশেষ প্রয়োজনে জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দফতর থেকে ফলের হার্ডকপি সংগ্রহ করা যাবে।

ফল পুনঃনিরীক্ষণ
রাষ্ট্রায়ত্ত মোবাইল অপারেটর টেলিটক থেকে আগামী ৫ থেকে ১১ মে পর্যন্ত এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করা যাবে বলে আন্তঃশিক্ষা বোর্ড পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক উপ-কমিটির আহ্বায়ক তপন কুমার জানিয়েছেন।

ফল পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করতে RSC লিখে স্পেস দিয়ে বোর্ডের নামের প্রথম তিন অক্ষর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখতে হবে; এরপর ফের স্পেস দিয়ে বিষয় কোড লিখে ১৬২২২ নম্বরে পাঠাতে হবে।

ফিরতি এসএমএসে ফি বাবদ কত টাকা কেটে নেওয়া হবে তা জানিয়ে একটি পিন নম্বর (পার্সোনাল আইডেন্টিফিকেশন নম্বর) দেওয়া হবে।

আবেদনে সম্মত থাকলে RSC লিখে স্পেস দিয়ে YES লিখে স্পেস দিয়ে পিন নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে যোগাযোগের জন্য একটি মোবাইল নম্বর লিখতে হবে; এরপর ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

প্রতিটি বিষয় ও প্রতি পত্রের জন্য ১২৫ টাকা হারে চার্জ কাটা হবে। যে সব বিষয়ের দুটি পত্র (প্রথম ও দ্বিতীয় পত্র) রয়েছে যে সকল বিষয়ের ফল পুনঃনিরীক্ষার আবেদন করলে দুটি পত্রের জন্য মোট ২৫০ টাকা ফি কাটা হবে।

একই এসএমএসে একাধিক বিষয়ের আবেদন করা যাবে, এক্ষেত্রে বিষয় কোড পর্যায়ক্রমে ‘কমা’ দিয়ে লিখতে হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: