দক্ষিণ জেলা বিএনপি’র কর্মী সভায় গাড়ী ভাংচুরের ঘটনায় উপজেলা চেয়ারম্যানসহ ১হাজার জনের বিরুদ্ধে মামলা

সনজয় সেন, পটিয়া সংবাদদাতা : পটিয়ায় দক্ষিণ জেলা বিএনপির কর্মী সভায় দুই গ্রুপে সংঘর্ষে অর্ধ শতাধিক গাড়ী ভাংচুরের ঘটনায় পটিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ চৌধূরী টিপুসহ ১হাজার জনের বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

পটিয়া থানার উপ-পরিদর্শক সৈয়দ মোশারফ হোসেন বাদী হয়ে আজ বৃহস্পতিবার এই মামলা দায়ের করেন। বিশেষ ক্ষমতা আইনে দায়েরকৃত এ মামলায় এজাহার নামীয় ১৮৮ জনকে আসামী করা হয়। উপজেলা চেয়ারম্যান টিপু ছাড়াও আরো আসামীদের মধ্যে রয়েছেন দক্ষিণ জেলা বিএনপির প্রাক্তন সহ-সভাপতি ও এক গ্রুপের নেতা এনামুল হক এনাম, পটিয়া পৌরসভা বিএনপির আহবায়ক নুরুল ইসলাম সওদাগর, উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম, পৌরসভা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক তৌহিদুল আলমসহ বেশ কয়েক শীর্ষস্থানীয় নেতা।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার বিকেল দক্ষিণ জেলা বিএনপির উদ্যোগে পটিয়া পৌর সদরের হল টুডে কনভেশন সেন্টারে কর্মী সমাবেশের আয়োজন করে। সমাবেশ শুরুর আগেই পটিয়ার সাবেক সাংসদ গাজী মোঃ শাহজাহান জুয়েল ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এনামুল হক এনামের অনুসারীদের মধ্যে মারামারি শুরু হলে এক পর্যায়ে তারা মহাসড়কে অর্ধ শতাধিক গাড়ী ভাংচুর করে।

পটিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি অধ্যাপক মোজাফফর আহমদ চৌধুরী টিপু বলেন, পুলিশ ইর্ষান্বিত হয়ে তার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা রেকর্ড করেছে। অথচ কর্মীসভার পূর্বে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার আবেদন জানালেও পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছাঁতে বিলম্ব করে। ফলে গুটি কয়েক যুবকের কারণে কর্মীসভার এক কিলোমিটার দূরে বিশৃঙ্খলা ও কয়েকটি গাড়ী ভাংচুর করেছে। এতে তিনি কোনভাবেই জড়িত নয়। আগামী উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে তাকে কোনঠাসা করতে পরিকল্পিতভাবে এই মামলায় ফাঁসানো হয়েছে। শুধু তা নয় তিনি অধ্যাপনা জীবনে ও ছাত্র রাজনীতিকালে তাঁর বিরুদ্ধে কোন সময় থানায় জিডি পর্যন্ত ছিল না বলে জানান।

পটিয়া থানার ওসি শেখ মোঃ নেয়ামত উল্লাহ জানিয়েছেন, বিএনপি কর্মীসভার নামে মহাসড়কে গাড়ী ভাংচুর ও ব্যারিকেড সৃষ্টি করে জানমালের ক্ষতিসহ জনগনের ভোগান্তি সৃষ্টি করেছে। উপজেলা চেয়ারম্যান টিপুর নেতৃত্বে শীর্ষ স্থানীয় বিএনপি নেতাকর্মীরা মহাসড়কে গাড়ী ভাংচুর চালিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: