মুরাদপুর থেকে সাড়ে ৪ কোটি টাকার ২ মার্সিডিজ জব্দ

প্রতিবেদক:  শুল্ক ফাঁকির অভিযোগে এবার মুরাদপুর থেকে সাড়ে চার কোটি টাকা মূল্যের বিলাসবহুল মার্সিডিজ বেঞ্জ ব্র্যান্ডের দুইটি গাড়ি জব্দ করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা।

বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে মুরাদপুরের কার কোল্ড অ্যান্ড সার্ভিস সেন্টার নামে একটি গ্যারেজে অভিযান চালিয়ে গাড়ি দুটি জব্দ করেন শুল্ক গোয়েন্দাদের একটি দল।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. মইনুল খান।

এর আগে গত ২ মে রাজধানীর মহাখালী ডিওএইচএস আবাসিক এলাকা থেকে বিলাসবহুল একটি মার্সিডিজ গাড়ি জব্দ করেন শুল্ক গোয়েন্দারা।

চট্টগ্রাম থেকে জব্দকৃত মার্সিডিজ জিপের রেজিস্ট্রেশন নম্বর- চট্ট মেট্রো -ঘ-১৪-১৭৫৩ ও মার্সিডিজ কারের রেজিস্ট্রেশন নম্বর- ঢাকা মেট্রো-ভ-১৪-০২২১। তবে দুটি নম্বরই ভুয়া বলে জানিয়েছে বিআরটিএ।

গাড়ি দুটির মালিক বিশ্বজিৎ ও যুবরাজ নামে দুই ব্যক্তি। তারা সার্ভিসিং য়ের জন্য গাড়ি রেখে যান বলে জানিয়েছেন ওই গ্যারেজের মালিক মো. জামশেদ।

জানা যায়, চট্টগ্রাম কাস্টমস হাউসের মাধ্যমে গাড়ি দুটির জন্য ২০১১ সালের ৫ জানুয়ারি লন্ডনের ঠিকানা ব্যবহার করে মোহাম্মদ মনসুর আলী নামে এক ব্যক্তি (কারনেট নম্বর-DDX-641832) এবং ২০১০ সালের ২৫ ডিসেম্বর লন্ডনের আরেক এলাকার ঠিকানা ব্যবহার করে মোহাম্মদ আশরাফুল আলম নামে অপর ব্যক্তি ফেরত নেয়ার শর্তে শুল্কমুক্ত গাড়ি দুটি আমদানি করেন। পরে তারা আর গাড়ি ফিরিয়ে নেননি।

ধারণা করা হচ্ছে শুল্ক গোয়েন্দাদের সাম্প্রতিক অভিযানের ফলে গাড়ির মালিকরা সার্ভিসিংয়ের নামে তা গ্যারেজে ফেলে গেছেন। শুল্ককরসহ গাড়ি দুটির আনুমানিক মূল্য প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা।

শুল্ক গোয়েন্দা কর্মকর্তারা জানান, গাড়ি দুটি চট্টগ্রাম শুল্ক গুদামে জমা দেয়া হয়েছে। এ বিষয়ে মামলাসহ যথাযথ আইনি প্রক্রিয়া গ্রহণ করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: