বাংলাদেশ ভূখণ্ডে ঢুকে ২ জনকে মারধর,পরে ক্ষমা

ডেস্ক: লালমনিরহাটের হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ) ২ বাংলাদেশিকে মারধর ও হত্যার চেষ্টা করেছে। এ ঘটনায় শনিবার সকালে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে বিজিবির কাছে ক্ষমা চেয়েছে বিএসএফ।

হাতীবান্ধা উপজেলার বড়খাতা ইউনিয়নের দোলাপাড়া এলাকার পেয়ার উদ্দিনের ছেলে শাহিদুল ইসলাম বলেন, আমি ও আমার স্ত্রী আমেনা বেগম শুক্রবার দুপুরে দোলাপাড়া জিগারঘাট সীমান্তে ৮৮৮ নং পিলারের কাছে বাংলাদেশ ভূখণ্ডে ঘাস কাটছিলাম। হঠাৎ করে ভারতীয় কুচবিহার জেলার শীতলখুচি থানার বড় মধুসুধন ক্যাম্পের ৩৪ বিএসএফ’র টহল দল আমাদের ওপর আক্রমণ করে। তারা আমার গলা টিপে ধরে হত্যার চেষ্টা করে। আমাকে ও আমার স্ত্রীকে বেদম মারধর করে। পরে স্থানীয় লোকজন ছুটে এলে ভারতীয় বিএসএফ টহল দল বাংলাদেশ ভূখণ্ড ত্যাগ করে।

ওই এলাকার সোনাবান বেগম বলেন, প্রথমত বাংলাদেশ ভূখণ্ডে এসে আমাকে ধাওয়া করে ভারতীয় বিএসএফ। পরে শাহিদুল ইসলাম ও তার স্ত্রীকে মারধর করেন তারা।

১৫ বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) লালমনিরহাট ক্যাম্পের অধিনায়ক লে. কর্নেল গোলাম মোর্শেদ বলেন, এ ঘটনায় বিজিবি ও বিএসএফ’র মধ্যে শনিবার সকালে কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে পতাকা বৈঠক হয়েছে। বাংলাদেশে প্রবেশ ও বাংলাদেশি নির্যাতনের ঘটনায় ভারতীয় বিএসএফের পক্ষ থেকে ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন তারা।

তবে বিএসএফের অভিযোগ, শাহিদুল একজন চোরাকারবারী। তিনি ভারত থেকে এপারে গরু আনার চেষ্টা করছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: