ঝিনাইদহে ‘জঙ্গি আস্তানা’ ঘিরে অভিযান, নিহত ২

ডেস্ক: ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়ি ঘিরে অভিযানে দুই জঙ্গি নিহত হয়েছেন। এ সময় জঙ্গিদের গুলিতে এক অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তিন সদস্য আহত হয়েছেন।

আজ রোববার ভোর থেকে উপজেলার এসবিকে ইউনিয়নের বজ্রাপুর গ্রামে গ্রামীণ ব্যাংকপাড়ায় জঙ্গি-বিরোধী এই অভিযান শুরু হয়।

তবে তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতদের নাম-পরিচয় জানা যায়নি। বাড়িতে এখনও অভিযান চলছে।

ঝিনাইদহের পুলিশ সুপার মীজানুর রহমান জানান, সিটিটিসির অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার নাজমুল হাসান, ঝিনাইদহ জেলা পুলিশের এসআই মহসিন আলী ও কনস্টেবল মুজিবুর রহমান আহত হয়েছেন। জনসাধারণের চলাফেরা নিয়ন্ত্রণ করতে বাড়িটির ২০০ গজের মধ্যে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে আরও জানা গেছে, বজরাপুর এলাকার এই বাড়ির মালিক জহুরুল ইসলাম, তার ছেলে জসিম ও ভাড়াটিয়া আলমগীর হোসেনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে মহেশপুর থানার ওসি আহমেদুল কবির জানান, জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পেয়ে শনিবার রাত থেকে বজ্রপুর গ্রামের ওই বাড়িটি ঘিরে রাখা হয়। রোববার ভোরে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযানে যায়। শুরুতেই এক জঙ্গি পালানোর চেষ্টা করলে পুলিশ গুলি চালায়। এ সময় শরীরে থাকা বোমার বিস্ফোরণ ঘটালে ঘটনাস্থলেই ওই জঙ্গির মৃত্যু হয়।

এরপর থেকে বাড়িতে অবস্থানকারী জঙ্গিদের সঙ্গে থেমে থেমে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের গুলি বিনিময় হয়। এতে অপর জঙ্গি নিহত এবং একজন অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তিন সদস্য আহত হন। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

জঙ্গি আস্তানায় অভিযান ঘিরে স্থানীয়দের সরিয়ে নেয়া হয়েছে। বাড়িটির আশপাশে কাউকে ভিড়তে দিচ্ছে না নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানান ওসি আহমেদুল কবির।

এর আগে গত ২১ এপ্রিল সন্ধ্যা থেকে ঝিনাইদহ সদর উপজেলার পোড়াহাটি গ্রামের ঠনঠনিপাড়ার ‘জঙ্গি’ আবদুল্লাহ ওরফে প্রভাতের বাড়ি ঘিরে রাখে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। পরদিন সেখানে অভিযান চালানো হয়। কিন্তু কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি। ধরা পড়েনি কোনো জঙ্গিও।

তবে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ওই বাড়ি থেকে ২০ ড্রাম রাসায়নিক দ্রব্য, বিপুল পরিমাণ ইলেকট্রিক ডিভাইস, একটি বিদেশি পিস্তল, সাতটি গুলি, একটি মোটরসাইকেল ও বিপুল পরিমাণ বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: