ডাক্তার বলে কথা! দিনমজুরের এক প্রেসক্রিপশনে চার হাজার টাকার ঔষধ

মো.আবুল বশর নয়ন, নাইক্ষ্যংছড়ি (বান্দরবান) : নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার বাইশারী বাজারে মেসার্স ভিআইপি নামক একটি ফার্মেসীতে দীর্ঘদিন রোগীদের লম্বা প্রেসক্রিপশন ধরিয়ে দিয়ে প্রতারণা চালিয়ে যাচ্ছে কমর উদ্দিন নামের এক পল্লী চিকিৎসক। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ রয়েছে সামান্য ব্যথা নিরাময়ের জন্য এক হতদরিদ্র দিন মজুর রোগীকে চার হাজার টাকা এবং বিভিন্ন সময়ে সুযোগ বুঝে অসহায় পাহাড়ী-বাঙ্গালী রোগীদের লম্বা প্রেসক্রিপশন ধরিয়ে দিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার। এছাড়াও অভিযোগ রয়েছে কিছুদিন পূর্বে অন্য এক ডাক্তারের সাথে রোগীকে ঔষুধ পাল্টিয়ে দেওয়ার বিষয় নিয়ে ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়ারও।

এ ব্যাপারে তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে (০১৮২০-০০১৫৪৮) জানতে চাইলে ডাঃ কমর উদ্দিন উল্টো ভূল চিকিৎসার ঘটনাটি পত্রিকায় ঢালাওভাবে প্রকাশ করতে বলে।

ভূক্তভোগী ইউনিয়নের নারিচবুনিয়া এলাকার বাসিন্দা দিনমজুর আলী আহমদ অভিযোগ করেন, তার বাম পায়ের কোমর থেকে পা পর্যন্ত ব্যথা অনুভব করলে এলাকার এক ব্যক্তির পরামর্শে গত ৬মে মেসার্স ভিআইপি ফার্মেসীতে কর্মরত ডাক্তার কমর উদ্দিনের শরণাপন্ন হন। ডাক্তার তৎক্ষনাৎ দুটি ইনজেকশন পুশ করে। ইনজেকশন পুশ করার পর ব্যথা আরো বেড়ে গেলে ডাক্তার লম্বা এই প্রেসক্রিপশন ধরিয়ে দেয়। টাকা না থাকায় ব্যবস্থা পত্রের ঔষুধ গুলো ক্রয় করা সম্ভব হয়নি। বর্তমানে আলী আহমদ প্রচন্ড ব্যথার কারণে রাতে ঘুমাতে পারেন না এবং কোথায় বসতেও পারেন না। এ অবস্থা চলতে থাকলে না খেয়ে থাকতে হবে বলে জানালেন আলী আহমদ।

এদিকে ইনজেকশন পুশের স্থানসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে ব্যথা ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। যার কারণে হাটা-চলা প্রায় বন্ধের উপক্রম ওই দিন মজুরের। এভাবে চলতে থাকলে পঙ্গু হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে আলী আহমদের।

তার প্রেশক্রিপশন যাচাই করে দেখা যায়, ডাঃ কমর উদ্দিন ভি, এইচ, ডব্লিউ, টি,পি (রাবেতা), ডিপ্লোমা ইন মেডিসিন (ঢাকা) এবং কক্সবাজার আল ফুয়াদ খতিব হাসপাতালের মেডিক্যাল প্যাকটিশনার লেখা রয়েছে প্যাডে।

জানা যায়, ডাক্তার কমর উদ্দিনের বাড়ী কক্সবাজার জেলার রশিদ নগর ইউনিয়নের পানিরছড়া গ্যারেজ এলাকায়। বছর তিনেক পূর্বে গর্জনীয়া বাজারের এক ফার্মেসী থেকে তাকে নিয়ে আসা হয় বাইশারী শাহ্ নুরুদ্দীন ফার্মেসীতে। এসময় রোগীদের সাথে বিভিন্ন সময় জগড়ায় লিপ্ত হয়ে পড়েন কমর উদ্দিন। পরে বনি বনা না হওয়ায় সে নারিচবুনিয়া ঘুরে পূনরায় বাইশারী বাজারের মেসার্স ভিআইপি ফার্মেসীতে ঘাটি গড়ে তুলে।

এ ধরনের ফার্মেসীর মালিক থেকে ডাক্তার সেজে চিকিৎসা চালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় বাইশারীর সাধারন রোগীরা আতংকে রয়েছেন। কখন না এসব ভূয়া ডাক্তারের ভূল চিকিৎসায় জীবন বিপন্ন হয়।

এসব ভূয়া ডাক্তারদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে ঔষুধ প্রশাসন ও উপজেলা প্রশাসনের হস্থক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকার সাধারন মানুষরা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: