পেকুয়ার মগনামা রুপাই খাল দখল করে স্থাপনা নির্মাণ করেছে প্রভাবশালীরা !

নিজস্ব সংবাদদাতা,পেকুয়া,কক্সবাজার : কক্সবাজারের পেকুয়ায় রোপাই খালে জেগে উঠা চর দখল করার মহাৎসবে মেতে উঠেছে স্থানীয় প্রভাবশালী মহল। দখল করে অবৈধ স্থাপনা নির্মান করেছে ওই প্রভাবশালীরা। মগনামা ইউনিয়ন যুবদল নেতা ও মগনামা ইউনিয়নের ধারিয়াখালী এলাকার মৃত ফেরদৌস আহমদের ছেলে ইখতিয়ার উদ্দিন রোপাই খালের ভরাট অংশে প্রায় ৪ একর জায়গায় নিজের নিয়ন্ত্রন প্রতিষ্টা করেছে। একসময় ওই যুবদল নেতা ইখতিয়ার উদ্দিনের প্রচন্ড ক্ষমতা ও পেশীশক্তির কাছে মগনামা, উজানটিয়া ইউনিয়নের আওয়ামীলীগ অসহায় ছিল। জোট সরকারের সময় তার একক ক্ষমতার বলয় তৈরি করে এলাকায় নানান অপকর্মর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। আ.লীগ বিরোধীদল থাকাবস্থায় ইখতিয়ার উদ্দিনের নেতৃত্বে ছাত্রদল ও যুবদল ক্যাডাররা ১৫ আগষ্টের দিন সোনালী বাজারে কাঙ্গাালী ভোজে হানা দিয়ে ভোজন ভোজের সব রান্না ফেলে দেয়।

বর্তমানে যুবদলের ওই ক্যাডারের নেতৃত্বে চলছে মগনামা রোপাই খালের পূর্ব অংশে দখলের মহোৎসব। জানা গেছে, রোপাইখালের উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের ধারিয়াখালী ও কুমপাড়া অংশে বিপুল অংশ ভরাট হয়ে গেছে। পলিরস্থর রোপাই খালের পুর্ব অংশ কাটাফাড়ি সোনালীবাজার সড়কের ধারিয়াখালী হামজা বর বাড়ীর সামনে ুনিকট প্রায় ৫একর মতো চর জেগেছে। এরই মধ্যে যুবদল নেতা নেতা ইখতিয়ার উদ্দিন প্র্রায় ৪একর জেগে উঠা চর দখলে নিয়েছে। ওই অংশে ইখতিয়ার উদ্দিন দখল ও আধিপাত্য প্রতিষ্টার জন্য ৪একরে মাটি কেটে সীমানা নির্ধারন করেন। এছাড়া খালের মাঝখানে ভিটি তৈরি করে একটি স্থাপনাও নির্মান করেছে।

জানা গেছে, পেকুয়া উপজেলার বদ্ধ জলমহালগুলোর মধ্যে রোপাইখাল প্রসস্থ ও দৈর্ঘ্য বিগত ৬০দশকে কাটাফাড়ি থেকে রোপাই খালকে পৃথক করা হয়। ফসল উৎপাদনের জন্য সেসময় মিষ্টি পানির উৎস সৃষ্টির জন্য সরকার রোপাই খাল বদ্ধ করে। ধারিয়াখালী থেকে বাইন্ন্যঘোনা রুকুরদিয়া, দরদরিঘোনা ও পশ্চিম মটকাভাঙ্গা হয়ে দক্ষিনমগনামার কোদাইল্ল্যদিয়া অংশে গিয়ে ওই খালের পরিসমাপ্তি ঘটে। প্রায় ১০কিলোমিটার এর বিস্তৃতি। রোপাইখালের খালের পানি থেকে মগনামা ইউনিয়নের বিপুল এলাকায় চাষীরা লবন চাষ করে। রোপাইখাল উম্মুক্ত বদ্ধ জলমহল হওয়ায় এখালে মৎস্য আহরন করে হাজার হাজার দরিদ্র মানুষ পরিবারে অন্ন রিযিক জোগায়। কিন্তু ওই খালের নাব্যতা হ্রাস পাওয়ায় যুবদলের ওই ইখতিয়ার দখল প্রক্রিয়া আরম্ভ করে। প্রবাহমান রোপাইখাল এক সময় প্রচন্ড খরেে¯্রাতা ছিল। অপরদিকে রোপাইখাল দখল করে যুবদল নেতা ইখতিয়ার উদ্দিন স্থাপনা নির্মান করায় এলাকয় ফের অসন্তোষ দেখা দিয়েছে। ধারিয়াখালীর লোকজন দখলের বিরুদ্ধে ইখতিয়ার উদ্দিনকে বিবাদি করে পেকুয়ার ইউএনও’র কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন।

এব্যাপারে জানতে ইখতিয়ার উদ্দিনের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি পরে যোগাযোগ করবেন বলে সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: