মিরসরাইয়ে পুত্রের হাতে পিতা খুন, পুত্র গ্রেফতার

নিজস্ব সংবাদদাতা,মিরসরাই : মিরসরাইয়ে পিতাকে পিটিয়ে হত্যা করেছে পুত্র। হতভাগ্য ওই বাবার নাম সফিউল আলম মেম্বার (৬৫)।

সোমবার (২৯ মে) রাত সাড়ে ৮ টার সময় উপজেলার ১২ নম্বর খৈইয়াছড়া ইউনিয়নের পূর্ব পোলমোগরা গ্রামের সফি মেম্বার বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে। স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থল থেকে ছেলে দিদারুল আলমকে আটক করে পুলিশে সোর্পদ করেছে। নিহত সফিউল আলম পূর্ব পোলমোগরা গ্রামের মৃত মনির আহম্মদের পুত্র এবং খৈইয়াছড়া ইউনিয়ন পরিষদের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের সাবেক সদস্য।

জানা গেছে, গত কয়েকদিন পূর্বে শফিউল আলমের সাথে তার পুত্র দিদারুল আলমের গাছের আম পাড়াকে কেন্দ্র করে ঝগড়া হয়। এবিষয়ে স্থানীয় সামাজিক নেতৃবৃন্দ বিষয়টির সুরাহা করে দেন। কিন্তু সোমবার সন্ধ্যায় ওই বিষয় নিয়ে পুণরায় পিতা-পুত্রের মধ্যে ঝগড়া হয়। এক পর্যায়ে পুত্রের লাঠির আঘাতে বাবার মৃত্যু হয়। ইতিপূর্বে জায়গাজমির বিরোধ নিয়ে খৈইয়াছড়া ইউনিয়ন পরিষদে একাধিকবার পিতাও পুত্রের দ্বন্দ্ব নিয়ে শালিসী বৈঠকও হয়।

খৈইয়াছড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাহেদ ইকবাল চৌধুরী জানান, ইউনিয়ন পরিষদে সফিউল আলম ও তার পুত্র দিদারুল আলমের একাধিক জায়গাজমি নিয়ে পাল্টাপাল্টি অভিযোগ মীমাংসা করে দেওয়া হয়। কয়েকদিন আগে সফিউল আলম পুত্রের বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ নিয়ে এলে তাকে থানায় অভিযোগ করার পরামর্শ দিয়েছিলাম। কিন্তু সোমবার রাতে সফিউল আলমকে ছেলে দিদারুল আলম পিটিয়ে হত্যা করার খবর পেয়ে থানাকে জানানো হয়।

মিরসরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহির উদ্দিন জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশ উদ্ধার করে নিয়ে আসা হয়েছে। ঘাতক পুত্র দিদারুল আলমকে স্থানীয় জনসাধারণ আটক করে পুলিশে সোর্পদ করে।

মিরসরাই থানার পরিদর্শক (তদন্ত) জাকির হোসেন জানান, হত্যাকান্ডের খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল থেকে নিহতের লাশ উদ্ধার করেছি। অভিযুক্ত দিদারুল আলমকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: