লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যক্রমে বিঘ্ন সৃষ্টি এবং গ্রেপ্তারের উপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : চেয়ারম্যানের উপস্থিতিতে ভাইস-চেয়ারম্যানকে প্রদত্ত আর্থিক ক্ষমতা চ্যালেঞ্জ করে এবং লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যক্রমে বিঘ্ন সৃষ্টি না করা এবং গ্রেফতার না করার নির্দেশনা চেয়ে লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দিন খান পিটিশনার হয়ে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের হাইকোর্ট বিভাগে রিট পিটিশন নং ৯৯৫৫/২০১৭ ইং দায়ের করেন।

উপজেলা চেয়ারম্যানের দায়েরকৃত রিট পিটিশন শুনানী শেষে  ১৭/৭/২০১৭ ই তারিখে বিচারপতি সৈয়দ মুহাম্মদ দস্তগীর হোসেন ও বিচারপতি মুহাম্মদ আতাউর রহমান খান সমন্বয়ে গঠিত দ্বৈত বেঞ্চ স্থানীয় সরকার মন্ত্রনালয় কর্তৃক জারিকৃত ৮/৬/২০১৬ ইং তারিখে ভাইস-চেয়ারম্যানকে আর্থিক ক্ষমতা প্রদান কেন আইন বর্হিভূত হবে না এবং লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যানের কার্যক্রমে বিঘ্ন সৃষ্টি না করার জন্য কেন নির্দেশনা প্রদান করা হবে না এবং লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান এডভোকেট ফরিদ উদ্দিন খানকে গ্রেপ্তার না করার জন্য কেন নির্দেশনা প্রদান করা হবে না মর্মে রুলনিশি জারি করেন।

বিচারপতিদ্বয় ইতিমধ্যে লোহাগাড়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদে কার্যক্রম পরিচালনায় কোনরূপ বিঘ্ন সৃষ্টি না করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেছেন এবং আই.জি.পি, এডিশনাল এস.পি(দক্ষিণ) ও লোহাগাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে ফরিদ উদ্দিন খানকে গ্রেপ্তার না করার জন্য নির্দেশ প্রদান করেছেন।

লোহাগাড়া উপজেলা চেয়ারম্যান ফরিদ উদ্দিন খানের পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন সাবেক এ্যার্টনি জেনারেল সিনিয়র এডভোকেট এ.জে মোহাম্মদ আলী এবং তাকে সহযোগিতা করেন এডভোকেট রিদুয়ানুল করিম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: