চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা আল্লাহ দেখবেন

নিজস্ব প্রতিবেদক : পুরো চট্টগ্রাম শহর পানির নিচে তলিয়ে আছে দু’দিন ধরে। কোথাও হাঁটু জল কোথাও আবার কোমড় ছাড়িয়ে গলা পর্যন্ত। জনজীবন এক প্রকার স্থবির হয়ে পড়েছে বলা যায়। প্রাকৃতিক বৃষ্টি কিংবা জলোচ্ছাসের উপর কারো হাত নেই এ কথা অস্বীকার করা যাবে না। কিন্তু বৃষ্টিবিহীন হঠাৎ আসা জোয়ারের পানি নিয়ন্ত্রনের কিংবা নিষ্কাষনের দায়িত্ব কি রাষ্ট্রের কারো নাই ।

ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সংবাদ সম্মেলন করে বলেছে, জলাবদ্ধতা নিরসন তার একার পক্ষে সম্ভব নয় । ওয়াসা, চউক, পানি উন্নয়ন বোর্ডসহ অনেকগুলো ট্রেব বডির সমন্বয়ে এ সমস্যার সমাধান করতে হবে। খুবই সুন্দর এবং যুক্তিযুক্ত বক্তব্য। কিন্তু জনগনের বক্তব্য সরকারের অন্যান্য সংস্থাগুলোকে কাজে লাগানোর দায়িত্ব কি জনগনের ? জনগন কি প্রত্যেক সংস্থার দ্বারে দ্বারে ধর্ণা দিবে এ সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পেতে ?

সিটি মেয়র যদি জেনেই থাকেন আরো অনেকগুলো কর্তৃপক্ষের যৌথ প্রচেষ্টায় এ সমস্যা সমাধান করতে হবে তবে তিনি কেন সে সকল সংস্থাকে কাজে লাগাচ্ছেন না ? তবে কি বক্তব্য দিয়েই তিনি তার দায়িত্ব শেষ করেছেন ?

নির্বাচনের আগেতো প্রতিশ্রুতিতে তিনি বলেননি যে, ক্ষমতায় গেলে সকল ট্রেডবডি সহযোগিতা করলে জলাবদ্ধতা সমস্যার সমাধান করা হবে। তখনতো তিনি বলেছিলেন, নির্বাচিত হলে নগরীর জলাবদ্ধতা নিরসনই হবে তার প্রধান কাজ।

এখনতো নগরবাসী দূর্ভিষহ কষ্টের মধ্যে দিনাতিপাত করলেও কারো যেন মাথা ব্যথা নেই। তাদের আরো অনেক কাজ।

এ অবস্থায় আগ্রাবাদ বাণিজ্যিক এলাকায় এক পথচারীকে বলতে শুনা গেল, “চট্টগ্রামের জলাবদ্ধতা আল্লাহ দেখবেন“। সত্যিইতো আমরা কেবল সৃষ্টিকর্তার উপরই নির্ভর করতে পারি। তিনি যদি আমাদেরকে এ সমস্যা থেকে তার দয়ায় মুক্তি দেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: