সেই সৌদি তরুণী আটক

বিশ্বময় ডেস্ক: সৌদি আরবে খুলুদ নামের এক তরুণীর মিনিস্কার্ট ও ছোট জামা পরে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়ানোর ভিডিও নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় উঠে। অবশেষে ওই তরুণীকে গ্রেফতার করেছে সৌদি পুলিশ।

জানা যায়, খুলুদ মিনিস্কার্ট ও ছোট জামা পরাবস্থায় উশায়কির নামে একটি ঐতিহাসিক দুর্গের ভেতরের খালি রাস্তায় হাঁটছেন। দুর্গটি রাজধানী রিয়াদের ৯৬ মাইল উত্তরে। আর এর ভিডিওটি ছড়িয়ে পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

এ নিয়ে তুমুল বিতর্ক শুরু হয় সামাজিক যোগাযোগের সাইটগুলোতে। কেউ কেউ রক্ষণশীল মুসলিম দেশ সৌদি আরবের পোশাক পরার রীতিনীতি ভঙ্গের জন্য খুলুদের শাস্তি দাবি করে। আবার কিছু সৌদি নাগরিক এই তরুণী মডেলের পক্ষ নিয়ে তার সাহসের প্রশংসা করেন।

স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম বলছে, তরুণীটি পুলিশকে জানিয়েছে, একজন পুরুষ অভিভাবককে নিয়ে তিনি সেখানে গিয়েছিলেন। তরুণীটি বলেন, স্ন্যাপচ্যাটে গত সপ্তাহ শেষে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়েছিল। ভিডিওটি তিনি নিজে অনলাইনে আপলোড করেন নি।

খুলুদকে অভিযুক্ত করা হবে কিনা তা জানতে চেয়ে মামলাটি এখন সরকারি কৌসুলির কার্যালয়ে পাঠানো হয়েছে।

টুইটারে খালেদ জিদান নামে এক সাংবাদিক লেখেন, সৌদি আরবে `হাইয়া` বা ধর্মীয় পুলিশ ফিরিয়ে আনা আবশ্যিক হয়ে পড়েছে। আরেকজন লেখেন, আমাদের উচিত দেশের আইন মেনে চলা। ফ্রান্সে নারীরা নিকাব পরলে তার জরিমানা হবে। তেমনি সৌদি আরবেও আবায়া ও সংযত পোশাক পরাও আইনের অংশ।

কেউ কেউ এই মডেলের পক্ষ নেন। লেখক এবং দার্শনিক ওয়ায়েল আল-ঘাসিম বলেন তিনি `ক্রুদ্ধ এবং ভীতিকর` টুইটগুলো দেখে মর্মাহত হয়েছেন।

ফাতিমা আল-ইসা নামে একজন লেখেন খুলুদ যদি বিদেশী হতো – তাহলে আমরা তার কোমর এবং চোখ নিয়ে মুগ্ধতা প্রকাশ করতাম। যেহেতু খুলুদ সৌদির, তাই আমরা বলছি তাকে গ্রেফতার করতে হবে। সুত্র: বিবিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

%d bloggers like this: